রোববার, ২২ মে ২০২২ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সাক্ষাৎকার

‘পর্যটন খাতে ধারাবাহিক উন্নয়ন অর্থনৈতিক ভিত্তিকে মজবুত করবে’

অনলাইন ডেস্ক
০৫ মার্চ ২০২১

বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার অনিন্দ্য ব্যানার্জি বলেছেন, ‘পর্যটন শিল্প বিকাশে বাংলাদেশের অপার সম্ভাবনা রয়েছে। পার্বত্য চট্টগ্রামে পর্যটন শিল্প দৃশ্যমান। এই খাতে ধারাবাহিক উন্নয়ন বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ভিত্তিকে মজবুত ও সমৃদ্ধ করবে।’ বুধবার (৩ মার্চ) চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের টাইগারপাসের অস্থায়ী নগর ভবনে মেয়র এম. রেজাউল করিম চৌধুরীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে তিনি একথা বলেন।

অনিন্দ্য ব্যানার্জি বলেন, ‘ওষুধ শিল্প, তৈরি পোশাক রফতানি শিল্প ও খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প খাতে বাংলাদেশ বেশ ভালো অবস্থানে আছে। ক্রম বিকাশমান এই খাতগুলো বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধির হার বৃদ্ধিতে গতিশীলতা এনেছে।’

চট্টগ্রাম বন্দরের বহুমুখী ব্যবহারের উপর গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, ‘চট্টগ্রাম বন্দরকে ঘিরে রিজিওনাল কানেক্টিভিটি সংযুক্ত হলে বাংলাদেশ ও ভারত উভয়ই উপকৃত হবে। চট্টগ্রামে কর্ণফুলী নদীর তলদেশ দিয়ে টানেল নির্মাণ, পতেঙ্গায় উপকূলবর্তী বে-টার্মিনাল এবং মহেষখালীতে গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে চট্টগ্রাম আন্তর্জাতিক কানেক্টিভিটির সঙ্গে সংযুক্ত হবে এবং বৈশ্বিক আর্থিক সমৃদ্ধির অংশীদার হবে।’

বৈঠকে মেয়র এম. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, ‘যারা একসময় বাংলাদেশকে তলাবিহীন ঝুড়ি বলে মন্দবাক্য উচ্চারণ করেছিল তারা এখন বাংলাদেশের উন্নতি দেখে লজ্জা পায় এবং স্বীকার করে, বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল।’

তিনি ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনারের চট্টগ্রাম বন্দরের বহমুখী ব্যবহারের মতামতের সঙ্গে সহমত প্রকাশ করে বলেন, ‘আমি দৃঢ়ভাবে মনে করি চট্টগ্রাম বন্দরের বহুমুখী ব্যবহারে রিজিওনাল ও ইন্টারন্যাশনাল কানেক্টিভিটির সংযুক্তিতে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন– চসিক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মুহাম্মদ মোজাম্মেল হক, ভারপ্রাপ্ত সচিব ও প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম, মেয়রের একান্ত সচিব মুহাম্মদ আবুল হাশেম প্রমুখ।

পর্তুগালে পর্যটক ও ট্যুরিজম সমস্যা সমাধানে ডিজিটাল পদ্ধতি
ইবনে সিনায় ডেপুটি ম্যানেজার পদে পদন্নোতি পেলেন জামাল উদ্দিন চৌধুরী

আপনার মতামত লিখুন