শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২ | ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
জাতীয়

পর্যটন এলাকা অপরাধ মুক্ত করতে পুলিশের ৮ সিদ্ধান্ত

কক্সবাজার প্রতিনিধি
১১ আগস্ট ২০২২

কক্সবাজার পর্যটন শহরের কলাতলীর পর্যটন জোনের কটেজ এলাকাকে অপরাধ মুক্ত করতে টুরিস্ট পুলিশ ও ব্যবসায়ীরা যৌথভাবে ৮টি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন।

সিদ্ধান্তগুলো হচ্ছে- কটেজ জোনের সব প্রবেশ পথে সিসি ক্যামেরা স্থাপন, যে সব কটেজে অপরাধমূলক কাজ ঘটে মালিকদের বলে এসব বন্ধ করার জন্য কর্মচারীদের আইডি কার্ড দেওয়া বাধ্যতামূলক করা। বহিরাগতদের আড্ডা বা অপ্রয়োজনে ঘোরাঘুরি নিষিদ্ধ, সিএনজি বা অটোরিকশা বা টমটম সেখানে দাঁড়িয়ে থাকতে পারবে না। যাত্রী নিয়ে বা নামিয়ে দিয়ে চলে যাবে, কটেজের, পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা করা, প্রত্যেক প্রবেশপথে গেট লাগানো হবে এবং রাত ১২টার পর শুধুমাত্র সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের পূর্ব পাশের মেইন প্রবেশপথ খোলা থাকবে এবং পর্যটকদের এনআইডি কার্ড বা জন্ম নিবন্ধন কার্ডসহ রেজিস্টার খাতায় এন্ট্রি করাতে হবে। এসব সিদ্ধান্ত আগামী ২০ দিনের মধ্যেই বাস্তবায়নের অঙ্গীকার করেন ব্যবসায়ীরা।

মঙ্গলবার সমুদ্র সৈকতের লাবনী পয়েন্টে টুরিস্ট পুলিশ কার্যালয়ের হলরুমে টুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার রিজিওনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রেজাউল করিম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় এসব সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। 

পুলিশ ও কটেজ মালিক সূত্র জানায়, কটেজ জোনকে অপরাধমুক্ত ও অবৈধ ব্যবসায়ীদের কবল থেকে মুক্ত করে পর্যটক বান্ধব করার লক্ষ্যে টুরিস্ট পুলিশ ও কটেজ মালিকদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ৬১টি কটেজের প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন। 

সভায় কটেজ মালিকরা বলেন, কয়েকজন অসাধু ব্যবসায়ীর জন্য পুরো কটেজ জোনের বদনাম হচ্ছে। অনেকেই দালাল নির্ভর ব্যবসা করে। ৫-৬ টি কটেজ পর্যটকদের হয়রানিসহ ব্ল্যাকমেইলিংয়ের সঙ্গে জড়িত। তাছাড়া কটেজ জোনে স্থানীয় বখাটে ও কিশোর গ্যাংদের উৎপাত রয়েছে। এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

সভার প্রধান অতিথি টুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার রিজিওনের পুলিশ সুপার মো. জিল্লুর রহমান বলেন, আপনার সবাই ধর্ম বিশ্বাস করেন, তাহলে কেন এসব অবৈধ আয় করা লাগবে? এসব বাদ দেন, পর্যটনের স্বার্থে আপনাদের কটেজ জোনের পরিবেশ উন্নয়ন করেন, আমরা টুরিস্ট পুলিশ আপনাদের পাশে সবসময় থাকব। 

সভাপতির বক্তব্যে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজাউল করিম বলেন, যেহেতু আপনাদের সরকারি অনুমোদন নেই, আমরা চাইলে আমরা আপনাদের ব্যবসা বন্ধ করে দিতে পারি, কিন্তু সেটা ভাল কোনো সমাধান নয়। আসুন সবাই মিলে সবার সহযোগিতায় একটা সুন্দর কটেজ জোন তৈরি করি, তখন আপনারা এমনিতেই পর্যটক পাবেন। আপনারা সবাই সংশোধন হলে আমরাও আপনাদের প্রচার করব।

সিক্স-জি নিয়ে ভিভোর শ্বেতপত্র প্রকাশ
বাংলাদেশে মাইক্রোসফট নিয়ে এলো ‘স্টার্টআপস ফাউন্ডার্স হাব’

আপনার মতামত লিখুন