সোমবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২২ | ১১ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সীমানার ওপারে

করোনার মধ্যেই ঘুরতে পারেন বিশ্বের যেসব শহরে

ডেস্ক রিপোর্ট
১১ জানুয়ারি ২০২২

করোনা পরিস্থিতি এই ভালো, এই খারাপ। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ আবারও লকডাউন ঘোষণা নিয়ে চিন্তাভাবনা করছে। এরপরেও কিছু কিছু দেশে, কিছু শহরে আপনি নিশ্চিন্তে ঘুরে বেড়াতে পারবেন। ​তাহলে চলুন ছবির মাধ্যমে জেনে নিই, করোনার মধ্যেই ঘুরতে পারবেন বিশ্বের যেসব শহরে-

লা পাজ, বলিভিয়া: বিশ্বের সর্বোচ্চ রাজধানী, লা পাজ আন্দিজের আল্টিপ্লানো মালভূমিতে অবস্থিত। তুষার-ঢাকা ৬৪৩৮ মিটার উঁচু মাউন্ট ইলিমানির কোলে সুন্দর গোছানো একটি শহর। 

পেরুভিয়ান: পেরুভিয়ান আন্দিজের একটি শহর, কুসকো। প্রত্নতাত্ত্বিক ধ্বংসাবশেষ এবং স্প্যানিশ ঔপনিবেশিক স্থাপত্যের জন্য পরিচিত। ইনকা সাম্রাজ্যের রাজধানী, এটি মাচু পিচুর প্রবেশদ্বার, আন্দিয়ান চূড়া থেকে অর্কিড-সমৃদ্ধ ঘন জঙ্গলের মধ্যে প্রাচীন একটি শহর।

লাসা, তিব্বত: তিব্বতের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের রাজধানী ইয়ারলুং জাংবো (সাংপো) নদীর একটি উপনদী লাসা নদীর কাছে ন্যাইনকেন্টংলা পর্বতমালায় অবস্থিত। লাসায় ১৭ শতকের পাটোলা প্রাসাদ একসময় দালাই লামার শীতকালীন বাড়ি হিসাবে পরিচিত ছিল।

কুইটো, ইকুয়েডর: আন্দিয়ান পাদদেশে দুটি সক্রিয় আগ্নেয়গিরির তুষারাবৃত চূড়া দ্বারা আচ্ছন্ন এই জায়গাটি । ইকুয়েডরের রাজধানী প্রাচীন ইনকান শহরের ভিত্তির উপর নির্মিত হয়েছিল। এটি সুসংরক্ষিত ঔপনিবেশিক কেন্দ্রের জন্যও বিখ্যাত।

সিমলা, ভারত: উত্তর ভারতের হিমাচল প্রদেশের রাজধানী সিমলা হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত। ভারতে সবচেয়ে জনপ্রিয় হানিমুন গন্তব্যটি একসময় ব্রিটিশ ভারতের গ্রীষ্মকালীন রাজধানী ছিল।

সান্তা ফে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রাচীনতম এবং সর্বোচ্চ রাজ্যের রাজধানী সান্তা ফে। নিউ মেক্সিকোতে সাংগ্রে দে ক্রিস্টো পাদদেশে অবস্থিত এই রাজ্য। স্প্যানিশ, পুয়েবলো ইন্ডিয়ান এবং আধুনিক আমেরিকান ঐতিহ্যের শৈল্পিক মিশ্রণের জন্য পরিচিত।

দুনিয়া যার কাছে খোলা আঙিনা
‘সোনার বাংলার সোনার মানুষ মিলন হাওলাদার’

আপনার মতামত লিখুন