মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২ | ২১ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
গাঁও গেরাম

আশুরার বিলকে পর্যটন এলাকায় রূপদানের পরিকল্পনা

দিনাজপুর প্রতিনিধি
১৫ মার্চ ২০২২
আশুরা বিল

আশুরা বিল

দিনাজপুর জেলার বিরামপুর ও নবাবগঞ্জ দু’টি উপজেলা নিয়ে প্রায় ৩৫শ’ একর জমিতে প্রাকৃতিক বনভূমি তার সাথে ১৩শ’ একর জমিতে আশুরার একটি বিল রয়েছে। শালবনের ভেতর ও বাইরে ঐতিহাসিক অনেক প্রত্নতাত্ত্বিক নির্দেশনা রয়েছে। এই বিলের প্রধান আকর্ষণ প্রাকৃতিক শালবন, শালবনের ভেতরে চমৎকার মনমুগ্ধকর দর্শনীয় স্থান, প্রাকৃতিক নির্দেশনা রয়েছে, যা আকৃষ্ট করছে ভ্রমণ পিপাসুদের। ঐতিহাসিক আশুরার বিলে একটি সংযোগ রাস্তায় কাঠের সাঁকো রয়েছে। এই সাঁকো দেখতে দেশের হাজার হাজার মানুষ এখানে আসে। আশুরার বিলের ভেতরে প্রাকৃতিক নির্দেশনা অনেক গুরুত্বপূর্ণ স্থানে রয়েছে। জাতীয় উদ্যান হিসাবে স্বীকৃতি পাওয়া স্থানীয় এমপি শিবলী সাদিকের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা ও বিলের ঐতিহ্য বিবেচনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আশুরার বিলকে পর্যটন শিল্প পরিণত করার লক্ষ্যে মাস্টার প্ল্যানিং এর কার্যক্রম হাতে নিয়েছেন। 

এই জাতীয় উদ্যানটি সম্প্রসারণ করে আশুরার বিল-এর ভেতরে দর্শনীয় স্থানগুলোতে বঙ্গবন্ধু টাওয়ার, গ্রান্ড প্যালেস, রিসার্চ, ও আন্তর্জাতিক মানের পিকনিক স্পট তৈরির জন্য বনের ভেতর রূপায়ন কার্যক্রম চলছে। এ প্রকল্পের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন সার্স অ্যাসোসিয়েট লি. এর অপারেশন ডিরেক্টর ইঞ্জিনিয়ার মোঃ সালাউদ্দিন। তিনি বলেন- এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে হলে ১ হাজার কোটি টাকার সম্ভাব্য ব্যয় হতে পারে।

দিনাজপুর-৬ আসনের এমপি শিবলী সাদিক বলেন, তার নির্বাচনী এলাকায় হিলি একটি স্থলবন্দর রয়েছে, তার পাশে ফুলবাড়ী উপজেলায় মধ্যপাড়া কঠিন শিলা প্রকল্প, হতে সরকার হাজার হাজার কোটি টাকা রাজস্ব আদায় করছে। নবাবগঞ্জে দিঘীরপাড়ায় ইউরেনিয়ামের খনি রয়েছে, পর্যটন শিল্পের জন্য উপযুক্ত দর্শনীয় আশুরার বিলটির সংস্কার করে পর্যটন শিল্প গড়ে তোলা হলে হাজার হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে, পর্যটন শিল্প এগিয়ে যাবে। দেশের প্রবৃদ্ধি হার বাড়বে।

ভারত থেকে ফিরতে লাগবে না করোনা পরীক্ষা
শিশুদের দ্বিগুণ ভ্রমণ কর নিচ্ছে সোনালী ব্যাংক!

আপনার মতামত লিখুন