শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২ | ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সীমানার ওপারে

পর্যটন ভিসার শর্ত অমান্য : আসামে ১৭ বাংলাদেশি আটক

অনলাইন ডেস্ক
২০ সেপ্টেম্বর ২০২২

পর্যটন ভিসার শর্ত অমান্য করার অভিযোগে ভারতের আসাম রাজ্যে আটক করা হয়েছে ১৭ বাংলাদেশিকে। রাজ্য পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেল (ডিজিপি) ভাস্করজ্যোতি মহন্ত এ তথ্য জানান।

আসাম পুলিশের প্রধান বলেন, ‘অনেক সময়ই বাংলাদেশ থেকে পর্যটন ভিসা নিয়ে ভারতে এসে ধর্মীয় প্রচার করেন বহু মানুষ। অনেকে আবার মৌলবাদের প্রচার করেন। এ ধরনের অনেক প্রচারকের আসামে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।’

পুলিশ জানায়, শনিবার আসামের বিশ্বনাথ জেলার বাঘমারি এলাকা থেকে ১৭ বাংলাদেশিকে আটক করা হয়েছে। ভিসার শর্ত ভাঙার অভিযোগে তাদের আটক করা হয়। এ মুহূর্তে আট জন পুলিশি হেফাজতে রয়েছেন। বাকিরা বিচার বিভাগীয় হেফাজতে রয়েছেন।

জানা যায়, আটক বাংলাদেশিরা প্রথম কুচবিহারে এসেছিলেন। গত মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) ওই ১৭ জন কুচবিহার থেকে বাসে করে বিশ্বনাথ জেলায় পৌঁছান। পরে শুক্রবার বাঘমারি এলাকায় একটি সভার আয়োজন করেন তারা। বিষয়টি জানতে পেরে সক্রিয় হয় পুলিশ। তদন্তে নেমে জানতে পারে, পর্যটন ভিসা নিয়ে ভারতে এলেও ওই ১৭ জন বাঘমারিতে বেড়ানোর জন্য আসেননি।

রাজ্য পুলিশের প্রধান ভাষ্করজ্যোতি মহন্ত জানিয়েছেন, রাজ্যে পা রাখা ১৭ বাংলাদেশি ভিসার নিয়ম ভঙ্গ করার জন্য তাদের আটক করা হয়েছে। বাংলাদেশ থেকে ট্যুরিস্ট ভিসায় এসে আসামে তাঁরা ধর্মীয় পাঠ দিচ্ছিলেন।

আসাম পুলিশের ডিজিপি বলেন, ‘বিশেষ করে নিম্ন আসাম এবং বরাক উপত্যকায় বাংলাদেশ থেকে মৌলভীদের আমন্ত্রণ জানানোর প্রবণতা রয়েছে। যাঁরা পর্যটক ভিসায় আসেন এবং ধর্মীয় প্রচার চালান। তাদের মধ্যে কেউ কেউ ভুলভাবে ট্যুরিস্ট ভিসা ব্যবহার করে এবং মৌলবাদ ছড়িয়ে দেয়। আমরা এই ইস্যুতে খুব কঠোর হতে চলেছি। বিশ্বনাথ জেলায় ট্যুরিস্ট ভিসায় আসা প্রায় ১৭ জন বাংলাদেশির খবর পাওয়া যায়। কিন্তু যখন আমরা তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করি তখন আমরা দেখতে পাই, তাঁরা ধর্মীয় প্রচারে নিয়োজিত ছিলেন; যা তাদের ভিসার শর্ত অনুসারে নয়। তাই ভিসার বিধান লঙ্ঘনের দায়ে তাদের আটক করা হয়েছে।’

নতুন নাম-ইউনিফর্ম পাচ্ছে ‘ট্যুরিস্ট পুলিশ’
ম্যানেজার পদে লোকবল নেবে ওয়ালটন প্লাজা

আপনার মতামত লিখুন