শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২ | ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ইভেন্ট

সুন্দরবনে নিষেধাজ্ঞা, ঘুরতে এসে ফিরে যাচ্ছেন পর্যটকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৬ জুলাই ২০২২

ইদের টানা ছুটিতে দেশি-বিদেশি অনেক পর্যটক সুন্দরবন দেখতে চলে আসছেন। কিন্তু সুন্দরবন ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা থাকায় তারা বনে প্রবেশ করতে পারছে না। তাই সুন্দরবনের পর্যটন স্পর্ট করমজলে চলছে নিরবতা।

জানা গেছে, পদ্মা সেতু চালু হওয়ায় ঢাকা থেকে মোংলায় আসতে সময় লাগছে মাত্র সাড়ে ৩ ঘণ্টা। তাই দেশি-বিদেশি অনেক পর্যাটক সুন্দরবন দেখতে চলে আসছেন। তারা জানেন না, সুন্দরবনে ভ্রমণের উপর ৩ মাসের নিষেধাজ্ঞা চলছে। সুন্দরবনের পর্যটন স্পর্ট করমজলের বনরক্ষীরা তাদের আবার ফেরত পাঠিয়ে দিচ্ছেন। তাই করমজলে চলছে সুনসান নিরবতা।

আগত পর্যটক শরীফ ভুইয়া বলেন, ‘সুন্দরবনে ভ্রমণের উপর নিষেধাজ্ঞা চলছে, তা আমি জানতাম না। বনরক্ষীরা সুন্দরবনে প্রবেশ করতে দেয়নি। তাই ফিরে যাচ্ছি, মন খারাপ।’

আরেক পর্যটক শাহ আলম জানান, স্বপ্নের পদ্মা সেতু চালু হওয়ায় ঢাকা থেকে মোংলায় অল্প সময় পৌঁছানো যাচ্ছে। তাই দেশি-বিদেশি অনেক পর্যাটক সুন্দরবন দেখতে চলে আসছেন। আবার তারা ফেরত যাচ্ছে। এর ফলে সরকার রাজস্ব হারাচ্ছে।

সুন্দরবন পর্যটন কেন্দ্র ‘করমজল’ এর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাওলাদার আজাদ কবির জানান, মাছের প্রজনন বৃদ্ধির জন্য নৌ চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এজন্য এখানে পর্যটক আসার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ইদের টানা ছুটি এবং পদ্মা সেতু চালু হওয়ায় দেশি-বিদেশি অনেক পর্যাটক সুন্দরবন দেখতে চলে আসছেন। দেশের জন্য এই নিষেধাজ্ঞা সবাইকে মানতেই হবে। এতে সুন্দরবন ভালো থাকবে এবং মাছ উৎপাদন বাড়বে।

আগামী ১ অক্টোবর থেকে আবার সুন্দরবনের করমজলসহ পযটন কেন্দ্রগুলো দেশি-বিদেশি পর্যটকে মুখোরিত হবে, এমনটাই আশা বন বিভাগের এই কর্মকর্তার।

সিলেটের পর্যটন এলাকা জনশূন্য, নেই কোন পর্যটক
৬ দিনেই ৬০০ কোটি ছাড়াল কক্সবাজার পর্যটন খাতের আয়

আপনার মতামত লিখুন