শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২ | ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ঘুরে আসি

এই শীতে কোথায় ঘুরতে যাবেন?

অনলাইন ডেস্ক
১৭ অক্টোবর ২০২২

সাধারণত আমরা সারা বছর অপেক্ষা করে থাকি শীতকালের জন্য। চারিদিকে ঠাণ্ডার আমেজ, ছুটির আনাগোনা এবং উৎসবের আবহ মিলিয়ে ঘুরতে যাওয়ার সেরা সময় হয়ে দাঁড়ায় শীতের মাসগুলো। পুরোদমে শীত শুরু হওয়ার আগে থেকেই দেখা যায় চারপাশে ভ্রমণের তোড়জোড়। বছর শেষের বড়সড় ভ্রমণটা পরিকল্পনার জন্য তাই অক্টোবর মাসই সবচাইতে উপযুক্ত।

শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত অপেক্ষা না করে জনপ্রিয় ভ্রমণের মাসগুলোর জন্য সবকিছু পূর্বপরিকল্পিত হলে ভ্রমণটাও ভালো যাবে। এই মৌসুমে ভ্রমণের সেরা পদ্ধতিগুলো কি- তা নিয়েই আজকে আমাদের গবেষণা।

ঘুরতে যাওয়ার সুযোগ এখন বিগত ২ বছরের তুলনায় অনেক বেশি। দেশ কিংবা বিদেশ, সবজায়গায়ই বাধাহীন ভ্রমণ সম্ভব। অনেকেই সাজেক অথবা কক্সবাজারের বদলে ঘুরে আসছেন থাইল্যান্ড কিংবা নেপাল থেকে। আবার বাজেট একটু বাড়ালেই ঘুরে আসা সম্ভব হচ্ছে তুরস্ক কিংবা মালদ্বীপ। ২ বছর কোনো ধরনের ভ্রমণ সম্ভব না হওয়ায় বেশিরভাগ মানুষ এখন দূরের দেশ ঘোরাটাই বেশি পছন্দ করছেন। তবে বিদেশ ঘুরতে চাইলে ফ্লাইটের জন্য বাজেটের বেশিরভাগ খরচ হয়ে যায়। বাজেট স্বল্পতার কারণে ভ্রমণ স্থগিত হওয়ার ঘটনাও প্রায়ই শোনা যায়। প্রযুক্তিগত ভাবে এই সমস্যার সমাধান করতে এখন আছে ০% ইএমআই সুবিধা। এই সুবিধা ব্যবহার করে এখনি ঘুরতে যেয়ে ভ্রমণের প্রয়োজনীয় টাকা পরিশোধ করা যায় সুবিধামত সময় নিয়ে। কিন্তু ইএমআই সুবিধাটি পাওয়ার জন্য ক্রেডিট কার্ড প্রয়োজন, যা আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষই ব্যবহার করেন না। কার্ড ছাড়া একই সুবিধা পাওয়ার জন্য এখন আছে ট্রাভেল লোনও। তবে কোথায় পাওয়া যায় এইসব সুবিধা? একটি সমাধান হলো অনলাইন ভ্রমণ বিষয়ক প্লাটফর্ম গোযায়ান।

৬ মাস পর্যন্ত ০% ই এম আই সুবিধা এবং ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত অনলাইন ট্রাভেল লোন- সবই আছে তাদের ওয়েবসাইট এবং অ্যাপে। প্রক্রিয়াগুলো সম্পূর্ণরূপে অনলাইনে সম্পন্ন করা যায় এবং ব্যাংকে যাওয়ারও কোন প্রয়োজন পড়েনা। শুধু তাই নয়, বাংলাদেশে বর্তমানে গোযায়ান-ই একমাত্র ভ্রমণ বিষয়ক অনলাইন প্লাটফর্ম যেখানে ফ্লাইটের ক্ষেত্রেও ০% ইএমআই সুবিধাটি পাওয়া যাচ্ছে। ফলে ফ্লাইট খরচের কারণে ভ্রমণ পুনর্বিবেচনা করার এখন কোনো প্রয়োজন নেই। ঘুরতে চলে যেতে পারবেন যখন খুশি তখনই।

ভ্রমণের আরেকটি অপরিহার্য অঙ্গ হলো হোটেল। কোনো জায়গায় যাওয়ার আগে থেকেই হোটেলের অবস্থান, গুনগত মান, খাবারের ব্যবস্থা ইত্যাদি যাচাই বাছাই করাটা বেশ কঠিন। অফলাইনে হোটেল খোজার ক্ষেত্রে গুটিকতক হোটেলের বাইরে বিকল্প পাওয়া যায়না। অনেকেই অনালাইনে বিদেশি ওয়েবসাইটগুলোতে হোটেল খোঁজেন কিন্তু এক্ষেত্রেও বেশ কিছু সীমাবদ্ধতা আছে। প্রথমতই এই ওয়েবসাইটগুলোতে পেমেন্টের মাধ্যম হিসেবে ক্রেডিট কার্ড থাকে, যা আমাদের দেশে একেবারেই বহুল প্রচলিত নয়। যদিও গন্তব্যে পৌঁছে নগদ অর্থ প্রদানের সুযোগ আছে, ২ বার মুদ্রা পরিবর্তনের কারণে এখানে খরচ পড়ে যায় অনেক বেশি। দেশি মুদ্রা দিয়ে অনলাইনেই ইচ্ছামতো হোটেল বুক করার জন্য নতুন একটা সমাধান এনেছে গোযায়ান। তাদের ওয়েবসাইটে এখন আছে প্রায় ৭ লক্ষ হোটেলের বিশাল সমাহার। এখানে পছন্দমত যেকোনো হোটেল তো পাবেনই, তার সাথে আছে বাংলাদেশি টাকায় বুকিং করার সুবিধা। দেশে প্রচলিত যেকোনো মাধ্যমে টাকা পরিশোধ করলেই তাৎক্ষণিক বুকিং নিশ্চিত। ফলে বিদেশি হোটেল বুক করাটাও এখন বেশ ঝামেলামুক্ত হয়ে দাঁড়িয়েছে।

বিদেশ ভ্রমণের জন্য সময় অথবা বাজেট, দুটির সংকটের কারণেই অনেকে এইবার দেশের মাঝেই ঘুরতে যেতে চান। বিশেষত যারা এখনো শিক্ষার্থী, তারা দেশের ভিতরের বিভিন্ন কোণ অন্বেষণ করতেই বেশি আগ্রহী। এক্ষেত্রেও শীতকালে ঘুরে আসার সুযোগ আছে সেন্ট মার্টিনস, কক্সবাজার, সাজেক, সুন্দরবন, টাঙ্গুয়ার হাওড় - এমন সব জায়গায়। বিগত ৩রা অক্টোবর থেকেই এই বছরের জন্য চালু হয়ে গিয়েছে সেন্ট মার্টিনস এর জাহাজ সেবা। দারুচিনি দ্বীপ ঘুরে আসার জন্য এইটাই হতে পারে সেরা সময়। এছাড়াও ট্যুর দিয়ে আসতে পারেন সুন্দরবনের মাঝে জাহাজে করে। শহুরে জীবনের সব ধরনের বিলাসিতাসহ কিছু ক্রুজ এখন আছে যা আপনাকে সুন্দরবনের গহীন জঙ্গলের দৃশ্য দেখাবে জাহাজের কেবিন থেকেই। এগুলো চারাও আছে টাঙ্গুয়ার হাওর, সাজেক ইত্যাদি জায়গা উপভোগ করার সুযোগ।

এই শীতকালটা যেন ভালোভাবে কাটে, তা নিশ্চিত করতে নিজের ভ্রমণের পরিকল্পনাগুলো শুরু করুন এখনই। ভ্রমণের ক্ষেত্রে এখন আর কোনো বাধা নেই।  

১৮ অক্টোবর থেকে রুমা ও রোয়াংছড়ি ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা
মুগ্ধতা ছড়াচ্ছে শুভ্র কাঞ্চনজঙ্ঘা

আপনার মতামত লিখুন