সোমবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২২ | ১১ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ইভেন্ট

সাজেক পর্যটন কেন্দ্রে আবারও পুড়ল রিসোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৩ জানুয়ারি ২০২২

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক পর্যটন কেন্দ্রে আবারও ভয়াবহ আগুনে পুড়ল একটি রিসোর্ট। একমাসের ব্যবধানে বুধবার (১২ জানুয়ারি) আবারও আগুন লাগে সেখানে। এতে কংলাক পাহাড়ের চূড়ায় ‘রক প্যারাডাইস’ নামে একটি রিসোর্ট ভস্মিভূত হয়েছে।

এর আগে ২০২১ সালের ২ ডিসেম্বর রাতে আগুন লেগে সাজেকে একটি রেস্টুরেন্ট ও একটি বসতঘরসহ তিনটি রিসোর্ট পুড়ে যায়। উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্রে এ খবর নিশ্চিত করা হয়েছে।

বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শরিফুল ইসলাম জানান, বুধবার ভোরে সাজেক পর্যটন কেন্দ্রের কংলাক পাহাড়ে রক প্যারাডাইস রিসোর্টে আগুন লাগে। ওই রিসোর্ট থেকেই আগুনের সূত্রপাত। তাৎক্ষণিক সেনাবাহিনী গিয়ে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় আগুন নেভানোর চেষ্টা চালায়। কিন্তু প্রচুর বাতাস ও পানির সংকটের কারণে অনেক চেষ্টার পরও আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি। এতে রিসোর্টটি ভস্মিভূত হয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান, পরে সেনাবাহিনীর সহায়তায় খাগড়াছড়ির দীঘিনালা থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট পৌঁছালে ঘণ্টাব্যাপী চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। আগুনে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

দীঘিনালা ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নুরুন্নবী জানান, রক প্যারাডাইস রিসোর্টটি পুড়লেও পরে আমরা গিয়ে সেনাবাহিনী ও স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় ঘণ্টাব্যাপী চেষ্টার একপর্যায়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনি।

এদিকে ভস্মীভূত রিসোর্টের মালিক ওমর বিঝু দাবি করে বলেন, সাজেকের কংলাকে তার বাকি রিসোর্টগুলো পুড়িয়ে দিতে কেরোসিন ছিটিয়ে নাশকতা চালানো হয়েছে। এ জন্য টুপিস ত্রিপুরা নামে স্থানীয় এক যুবককে দায়ী করেন তিনি। তার দাবি, রক প্যারাডাইস রিসোর্টে চুরির দায়ে অভিযুক্ত টুপিস ত্রিপুরাকে একমাস আগে এলাকা থেকে বিতাড়িত করা হয়েছিল। প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে সে এই কাজ করে থাকতে পারে।

সেন্টমার্টিনকে ‘মেরিন প্রটেক্টেড এরিয়া’ ঘোষণা
আগামী ৫০ বছরে ব্যবহার অযোগ্য হবে বঙ্গোপসাগর

আপনার মতামত লিখুন