মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ | ২৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
অর্থনীতি

সোনালী ব্যাংকের ডিএমডি সুভাস চন্দ্রকে ভিসতা পরিবারের শুভেচ্ছা

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৭ নভেম্বর ২০২২

সোনালী ব্যাংকের পদোন্নতিপ্রাপ্ত ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর (ডিএমডি) সুভাস চন্দ্র দাসকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছে ভিসতা ম্যানেজমেন্ট। গত ২৩ নভেম্বর (বুধবার) মতিঝিলে সোনালী ব্যাংকের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তার সঙ্গে সাক্ষাত করে ভিসতা কর্তৃপক্ষ। 

ভিসতা ইলেকট্রনিক্সের পক্ষ থেকে সুভাস চন্দ্র দাসকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান ভিসতা চেয়ারম্যান শামসুল আলম, ব্যবস্থাপনা পরিচালক লোকমান হোসেন আকাশ, পরিচালক উদয় হাকিম এবং উপদেষ্টা শামসুল আরেফিন সোহেল। 

সেসময় ভিসতা কর্তৃপক্ষ নতুন ডিএমডির সর্বাঙ্গীন সাফল্য কামনা করে। দেশীয় শিল্পের বিকাশ এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে তার আরো জোরালো ভূমিকা থাকবে বলে প্রত্যাশা করে। এদিকে সুভাস চন্দ্র দাস প্রত্যাশা করেন- উচ্চমানের পণ্য দিয়ে বাংলাদেশি ইলেকট্রনিক্স ব্র্যান্ড ভিসতা অতি দ্রুত গ্রাহকপ্রিয়তা পাবে এবং টেকনোলজিক্যাল সেক্টরে কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখবে। 

উল্লেখ্য, সোনালী ব্যাংকের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর হিসেবে সম্প্রতি পদোন্নতি পেয়েছেন স্বনামধন্য ব্যাংকার সুভাস চন্দ্র দাস (এফসিএ এফসিএমএ)। এর আগে তিনি রাষ্ট্রায়ত্ত ওই ব্যাংকের জেনারেল ম্যানেজার এবং চিফ ফিনানসিয়াল অফিসার ছিলেন। 

ব্যাংকিং সেক্টরে ২৫ বছরের অভিজ্ঞ সুভাস চন্দ্র দাস ২০০০ সালে বাংলাদেশ ব্যাংকে সহকারী পরিচালক হিসেবে যোগদান করেন। কেন্দ্রীয় ব্যাংকে তিনি ডেপুটি ডিরেক্টর, জয়েন্ট ডিরেক্টর, হিসেবে পদোন্নতি পান। কাজ করেছেন ফরেইন এক্সচেঞ্জ পলিসি, ব্যাংকিং ইন্সপেকশন, ফরেইন এক্সচেঞ্জ ইনভেস্টমেন্ট, অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড বাজেটিং ইত্যাদি বিভাগে। সোনালী ব্যাংকে তিনি কাজ করছেন ৮ বছর ধরে। সেখানে তিনি হেড অ্যাকাউন্টস, হেড অব ট্রেজারি, ফরেইন রেমিটেন্স বিভাগের জেনারেল ম্যানেজার, ফরেইন ট্রেড, এমআইএস, গভর্নমেন্ট অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড সার্ভিস, হেড অব জেনারেল ম্যানেজারর্স অফিস- এসব বিভাগের দায়িত্বে ছিলেন। একইসঙ্গে তিনি সোনালী ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের পরিচালকের দায়িত্ব পালন করছেন। 

সুভাস চন্দ্র দাস এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের সিনিয়র ফিনানসিয়াল ম্যানেজমেন্ট বিশেষজ্ঞ হিসেবে কাজ করেছেন। ফিনানসিয়াল অ্যানালিস্ট এবং ফিনানসিয়াল ম্যানেজার হিসেবে কাজ করেছেন বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে বাংলাদেশ মিউনিসিপ্যাল ডেভেলপমেন্ট ফান্ডে। জনতা ব্যাংকের জেনারেল ম্যানেজার হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। 

সুভাস চন্দ্র দাস ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব বিজ্ঞান থেকে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর করেছেন। তিনি ইনস্টিটিউট অব কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্টস অব বাংলাদেশ এবং ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড অ্যাকাউন্ডন্স অব বাংলাদেশের সম্মানিত ফেলো। সেইসঙ্গে তিনি ইনস্টিটিউট অব ব্যাংকার্স, বাংলাদেশের ডিপ্লোমা অ্যাসোসিয়েট। 

তিনি অত্যন্ত কৃতিত্বের সঙ্গে বিভিন্ন জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করেছেন। অংশ নিয়েছেন বিভিন্ন সেমিনার, সিম্পোজিয়ামে। তিনি ভিজিটর একাডেমিক হিসেবে আইসিএমএবি, আইসিএবি, বিবিটিএ, এসবিটিআই এবং জেবিএল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট ইত্যাদি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গেও জড়িত।

সুভাস চন্দ্র দাস পেশাগত কাজে বিভিন্ন দেশ ভ্রমণ করেছেন। এর মধ্যে রয়েছে ইংল্যান্ড, কানাডা, জার্মানি, থাইল্যান্ড ইত্যাদি। 

সোনালী ব্যাংকের ডিএমডি সুভাস চন্দ্র দাস ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় এক সম্ভান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার স্ত্রী মিসেস সোমা দত্ত। তিনি এক পূত্র ও এক কন্যার জনক। ছোটবেলা থেকেই ভীষণ মেধাবী সুভাস চন্দ্র দাস ভবিষ্যতে ব্যাংকিং সেক্টরে আরো গুরুত্বপূর্ণ পদে আসীন হবেন বলে শুভাকাঙ্ক্ষীরা মনে করেন। 

দেশি-বিদেশি ২০০ প্রতিষ্ঠানের পণ্য একসাথে পাচ্ছেন দর্শনার্থীরা
৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা বাড়ল বান্দরবানের রুমা-রোয়াংছড়িতে

আপনার মতামত লিখুন